এক যে ছিলো বুড়ো

এক যে ছিলো বুড়ো
পুরনো চাল নাকি ভাতে বাড়ে। প্রতিষ্ঠিত এই জনশ্রুতি বা জনবিশ্বাস বা গণথিয়োরিকে মান্যতা দিলে পুরনো ছড়ায় কি পাঠক বাড়বে?
তিরিশ বছর আগে ১৯৯২ সালে লেখা আমার এই ছড়াটায় পাঠক না বাড়ুক, না কমলেই হয়!
সাহস করে ফেসবুকে আপলোড করেই ফেললাম ছড়াটা–
এক যে ছিলো বুড়ো
লুৎফর রহমান রিটন
যখন– জোয়ান ছিলো বুড়ো
তখন– পেলে মাছের মুড়ো
সে যে– একাই সাবাড় করার জন্যে
করতো তাড়াহুড়ো।
তখন– সেই সে তাজা বুড়ো
যদি– দেখতো পাহাড় চুড়ো
তবে– শিখরে তার চড়ার জন্যে
করতো তাড়াহুড়ো।
এখন– সেই সে শাদা বুড়ো
বয়েস– সেভেনটি ফোর পুরো
সে যে– মাছের মুড়ো পাহাড় চুড়ো
দেখলে বলে–ধুরো!
[ রচনাকাল/ ১৯৯২ ]
অটোয়া ০৪ নভেম্বর ২০২২
- Advertisement -

Read More

Recent